পুলিশ-শ্রমিক সংঘর্ষে রণক্ষেত্র গাবতলী

পরিবহন শ্রমিক-পুলিশের দফায় দফায় সংঘর্ষ ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনায় রণক্ষেত্রে পরিণত হয়েছে রাজধানীর অন্যতম প্রবেশ পথ গাবতলী বাস টার্মিনাল এলাকা। শ্রমিকদের বিক্ষোভ-অগ্নিসংযোগের জবাবে কাঁদুনে গ্যাসের শেল ছুড়েছে পুলিশ। কাঁটাতারের বেড়া দিয়ে গাবতলী টার্মিনাল এলাকা অবরুদ্ধ করে রেখেছে পুলিশ।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার বিকেল থেকে শ্রমিকরা বিক্ষোভ করছিল। পুলিশ তাদের সঙ্গে সমঝোতার চেষ্টা করলে তারা একপর্যায়ে গাড়ি ভাঙচুর করে। কয়েকটি গাড়ি ভাঙচুরের পর পুলিশ তাদের বাধা দেয়। এরপর সোয়া ৮টার দিকে আন্তঃজেলা পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের কার্যালয়ের সামনে এই সংঘর্ষের সময় পুলিশের একটি রেকার এবং একটি অস্থায়ী পুলিশ বক্সে আগুন দেওয়া হয়। ফায়ার সার্ভিসের গাড়ির আগুন নেভাতে এলে বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা গাড়ি ভেতরে প্রবেশ করতে দেয়নি।

ফায়ার সার্ভিসের নিয়ন্ত্রণ কক্ষের ডিউটি অফিসার আমিনুল ইসলাম বলেন, ‘আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট পুলিশের পাহারায় ঘটনাস্থলে যাচ্ছে।

গাবতলী টার্মিনালের পশ্চিম দিক থেকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ব্যবহার করা হয়েছে পুলিশের সাঁজোয়া যান ও জলকামান। নিক্ষেপ করা হয় রাবার বুলেট ও টিয়ার সেল। রাত ৮টা থেকে শুরু হয়ে রাত সাড়ে ১০টা পর্যন্ত দফায় দফায় এ সংঘর্ষ চলেছে।

গাবতলী টার্মিনাল এলাকার বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে। পুরো এলাকায় এখন বিরাজ করছে থমথমে পরিস্থিতি!

পুলিশের মিরপুর বিভাগের উপ-কমিশনার মো. মাসুদুর রহমান পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে থাকার কথা জানিয়ে বলেন, ‘পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। শ্রমিকরা একদিকে অবস্থান করছে, বিপরীত দিকে পুলিশ অবস্থান রয়েছে। পরিস্থিতির অবনতি যাতে না হয় সে দিকে আমাদের নজর রয়েছে।’

উল্লেখ্য, ঢাকার সাভারে ট্রাকচাপা দিয়ে এক নারীকে হত্যার দায়ে সোমবার ট্রাকচালক মীর হোসেনকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দেন আদালত। এছাড়া পরিচালক তারেক মাসুদ ও সাংবাদিক মিশুক মুনীর নিহতের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় বাসচালক জামির হোসেনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দেন মানিকগঞ্জের আদালত। এ রায় ঘোষণার পর থেকেই ঢাকাসহ দেশের বেশ কয়েকটি বিভাগে অঘোষিত কর্মবিরতিতে গেছে গাড়ি চালকরা। রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ করছে তারা।

এরই অংশ হিসেবে শ্রমিকরা মঙ্গলবার সকাল থেকেই আন্তঃজেলা শ্রমিক ইউনিয়নের কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করছিলেন। সন্ধ্যার পর তাদের সংখ্যা বাড়তে থাকে। এক পর্যায়ে বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা উত্তেজিত হয়ে গাড়ি চলাচলে বাধা দেয়। এ সময় পুলিশ তাদের থামানোর চেষ্টা করলে সংঘর্ষ শুরু হয় বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান। স্বল্প সংখ্যক পুলিশ সদস্য তাৎক্ষণিকভাবে পিছু হটে। পরে অতিরিক্ত পুলিশ এলে উভয় পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়।

Spread the love

নিউজটি পড়া হয়েছে : 28 বার

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭ crime-tv.com
শিরোনাম :
★★ শিল্পমন্ত্রীর নামে চাঁদাবাজি, এসআইকে অব্যাহতি ★★ তুরাগ বাসে ছাত্রী ধর্ষণচেষ্টা, প্রতিবাদে অর্ধশতাধিক বাস আটক ★★ প্রতিনিধিদল নিয়ে ভারত গেলেন ওবায়দুল কাদের ★★ বিভিন্ন অপরাধে ৩১টি প্রতিষ্ঠানকে ২ লাখ ৩৭ হাজার টাকা জরিমানা ★★ ‘সিইসির বক্তব্য বিএনপিকে নির্বাচনে আনার কৌশল’ ★★ প্রধান নির্বাচন কমিশনারের পদত্যাগ চাইলেন কাদের সিদ্দিকী ★★ ছেলেকে হত্যা করে মায়ের আত্মহত্যা ★★ নোয়াখালীতে সহস্রাধিক লোক বিএনপি থেকে আ’লীগে যোগদান ★★ ‘মাথায় হাত দিয়ে কথা দেন, নয়তো আমার মৃত্যুর খবর শুনবেন’ ★★ রোহিঙ্গাদের জন্য কক্সবাজারে হাসপাতাল করে দেবে মালয়েশিয়া