বাংলাদেশ-ভারত খেলা হলেই কেন এত বিতর্ক?

ভারতের মাটিতে একটি মাত্র টেস্ট খেলতে হায়দরাবাদে রয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। ইতিমধ্যে ভারত ‘এ’ দলের বিরুদ্ধে প্রস্তুতি ম্যাচও খেলেছে মুশফিক বাহিনী। প্রস্তুতি ম্যাচ টাইগারদের বোলিং দুর্বলতা ছিল চোখে পড়ার মতো। সাকিব আল হাসানদের এই ‘বোলিং দুর্বলতা’ নিয়ে সমালোচনায় মুখর ছিল অনেকেই। এ নিয়ে ভারতীয় গণমাধ্যমেও শিরোনাম হয়েছে- ‘এই বোলিং শক্তি নিয়ে কীভাবে বিরাট কোহলিদের বিরুদ্ধে টেস্টে লড়বে বাংলাদেশ’।

অপেক্ষা আর মাত্র একদিনের। বৃহস্পতিবার হায়দরাবাদের ডেকানে ভারতের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে মাঠে নামছে বাংলাদেশ। টাইগাররা এই সমালোচনার সমুচিত জবাব দিতে পারবে কি না তা মাঠেই বোঝা যাবে। তবে এই দুই দেশের মধ্যে খেলা মানেই যেন বিতর্ক।

এই দুই দেশের ক্রিকেটারদের মধ্যে খেলার মাঠে মাঝে মাঝে তর্কবিতর্ক হয়। সেটা কোনো নতুন ঘটনা নয়। খেলার মাঠে মেজাজ হারানোর ঘটনা তো হতেই পারে। এতটুকু বাদ দিলে দু’দেশের ক্রিকেটাররা একে অপরের প্রতি যথেষ্ট শ্রদ্ধাশীল। সাকিব-মুমিনুলরা ভারতীয় ক্রিকেটারদের প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শন করেছেন টেস্ট ম্যাচের বল গড়ানোর আগেই।

হায়দরাবাদ টেস্ট চলাকালীন মুশফিকুর রহিমরা বিরাট কোহলির দলের উদ্দেশে কড়া মন্তব্য করতেই পারেন। এতে অবাক হওয়ারও কিছু নেই। কিন্তু মাঠের বাইরের কিছু ঘটনা নিয়ে দু’দেশের ক্রিকেটপাগলদের মধ্যে বিতর্কের শেষ নেই। ঝড় বয়েছে সোশ্যাল মাধ্যমেও। এ নিয়ে ক্রিকেট মাঠও উত্তপ্ত হয়েছে অতীতে। সেই ঘটনায় এখনও দু’দেশের ক্রিকেটারদের মনে ক্ষোভ থাকতেই পারে।

একনজরে দেখে নেয়া যাক সেই সব বিতর্ক-

১. এশিয়া কাপ ফাইনালের ঠিক আগে ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিংহ ধোনি ও বাংলাদেশের বোলার তাসকিন আহমেদের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। সেই ছবিতে দেখা যায়, বাংলাদেশী বোলার তাসকিনের হাতে ভারত অধিনায়ক ধোনির কাটা মুণ্ডু। সেই ছবি বিতর্কের আগুন জ্বালিয়েছিল।

২. এর আগে আরও একটি ছবি দু’দেশের ক্রিকেট আবহকে উত্তপ্ত করে তুলেছিল। ছবিটিতে দেখা যায়, ‘টাইগার স্টেশনারি’ নামক এক দোকানে মুস্তাফিজুর কাটার পাওয়া যাচ্ছে। পাশে কাটার হাতে দাঁড়িয়ে মুস্তাফিজুর রহমান। এর নিচে মহেন্দ্র সিংহ ধোনিসহ দাঁড়িয়ে ভারতের সাত ক্রিকেটার। তাদের মাথা অর্ধেক কামানো।

৩. অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপ চলাকালীন যে ঘটনা ঘটেছিল, তার জন্য এখনও বাংলাদেশের ক্রিকেটভক্তরা ভারতের উপরে ক্ষিপ্ত। বিশ্বকাপে ভারত ও বাংলাদেশের ম্যাচ চলাকালীন জায়ান্ট স্ক্রিন বোর্ডে ভারত জেতার আগেই ফুটে উঠেছিল ‘জিতেগা ভাই জিতেগা, ইন্ডিয়া জিতেগা।’ এবার হায়দরাবাদেও কি এমন ধ্বনি উঠবে? ইতিমধ্যেই এমন প্রশ্ন তুলেছেন বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমিরা।

৪. ২০১৫ বিশ্বকাপে ভারত ও বাংলাদেশের ম্যাচ নিয়ে এখনও ক্ষোভ প্রকাশ করেন টাইগার সমর্থকরা। তাদের অভিযোগ-ওই ম্যাচে পক্ষপাতিত্বমূলক আম্পায়ারিং করা হয়েছিল। সুরেশ রায়না এলবিডব্লিউ ছিলেন। তবুও তাকে আউট দেয়া হয়নি। রোহিত শর্মার ক্যাচ ধরা হলেও আম্পায়ার জানিয়ে দেন রুবেল হোসেনের ডেলিভারি ‘নো বল’ ছিল।

তাছাড়া বিশ্বকাপে প্রথা ভেঙে চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়ার হাতে ট্রফি তুলে দেন আইসিসি চেয়ারম্যান শ্রীনিবাসন। কিন্তু নিয়ম অনুযায়ী, চ্যাম্পিয়ন দলের হাতে বিশ্বকাপ তুলে দেয়ার কথা আইসিসি সভাপতির। সেসময় আইসিসির সভাপতি ছিলেন আ হ ম মুস্তফা কামাল। পরে তিনি আইসিসির সভাপতির পদ থেকে পদত্যাগ করেন।

তবে ভারত ও বাংলাদেশের এই টেস্ট ম্যাচ অতীতের সব কলংককে মুছে দেবে বলে আশাবাদ দু’দেশের ক্রিকেটপ্রেমিদের। সূত্র: এবেলা

Spread the love

নিউজটি পড়া হয়েছে : 228 বার

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ



সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত, ২০১৭ crime-tv.com
শিরোনাম :
★★ শিল্পমন্ত্রীর নামে চাঁদাবাজি, এসআইকে অব্যাহতি ★★ তুরাগ বাসে ছাত্রী ধর্ষণচেষ্টা, প্রতিবাদে অর্ধশতাধিক বাস আটক ★★ প্রতিনিধিদল নিয়ে ভারত গেলেন ওবায়দুল কাদের ★★ বিভিন্ন অপরাধে ৩১টি প্রতিষ্ঠানকে ২ লাখ ৩৭ হাজার টাকা জরিমানা ★★ ‘সিইসির বক্তব্য বিএনপিকে নির্বাচনে আনার কৌশল’ ★★ প্রধান নির্বাচন কমিশনারের পদত্যাগ চাইলেন কাদের সিদ্দিকী ★★ ছেলেকে হত্যা করে মায়ের আত্মহত্যা ★★ নোয়াখালীতে সহস্রাধিক লোক বিএনপি থেকে আ’লীগে যোগদান ★★ ‘মাথায় হাত দিয়ে কথা দেন, নয়তো আমার মৃত্যুর খবর শুনবেন’ ★★ রোহিঙ্গাদের জন্য কক্সবাজারে হাসপাতাল করে দেবে মালয়েশিয়া